যুগের গড্ডালিকায় গা-ভাসিয়ে শুধুমাত্র একটি সার্টিফিকেট অর্জন নয়, যথার্থ  সাহচার্য ও জ্ঞান চর্চার মাধ্যমে তরুণ শিক্ষার্থীদের মেধার পরিপূর্ণ বিকাশ ও বহুমূখী সম্ভাবনার দ্বার উদ্ঘাটনের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম গড়ে তোলার লক্ষ্যে সর্বোপরী আধুনিক বিশ্বায়নে শিক্ষায় একাবিংশ শতাব্দির চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় যথার্থ , দক্ষ, যোগ্য ও সাহসী নাগরিক হিসাবে গড়ে তোলার এক দৃঢ় প্রত্যয়কে সামনে রেখে নাটোর শহরের কতিপয় বিদ্যোৎসাহী ব্যক্তির ব্যক্তিগত উদ্যোগে ও সক্রিয় ভূমিকা এবং বিভন্ন পেশাজীবি-বুদ্ধিজীবি, দল-মত নির্বিশেষে নাটোর পৌরএলাকার সর্বস্তরের জনগনের ঐকান্তিক প্রচেষ্টার সার্থক ফসল হিসাবে ১০ই জুলাই ১৯৯৮ সালে প্রতিষ্ঠিত  প্রতিষ্ঠিত হয়েছে নাটোর সিটি কলেজ
    নাটোরবাসীর দীর্ঘদিনের আকাঙ্খার প্রতি লক্ষ্য রেখে সম্পূর্ণরুপে শহরের কোলাহলমুক্ত নাটোর -ঢাকা বাইপাস সংলগ্ন  নিরিবিলি এক মনোরম পরিবেশে (উত্তরে নাটোর রেলওয়ে স্টেশন, পুর্বে ঐতিহ্যবাহী তেবারিয়া হাট, দক্ষিণে নাটোর সুগার মিলস এবং পশ্চিমে বনবেলঘড়িয়া বাইপাস)  দক্ষ পরিচালক মন্ডলীর পরিচালনায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছে শিক্ষায় উচ্চমান সম্পন্ন ব্যতিক্রমধর্মী এ আদর্শ বিদ্যাপিঠ। সূচনা লগ্নেই নাটোর সিটি কলেজের পক্ষ  থেকে রাজনীতি, সন্ত্রাস ও ধুমপানমুক্ত  ঘোষণা দেয়া হয়। এখানে রয়েছে- তরুণ অথচ মেধাবী, বুদ্ধিদীপ্ত  একঝাঁক প্রতিশ্রুতিশীল শিক্ষক। শিক্ষার পরিবেশ আকর্ষণীয় ও ফলপ্রসু করতে শিক্ষকদের নিরন্তর পরিশ্রম, সার্বক্ষনিক ক্লাস মনিটরিং, পাঠ পরিকল্পনা, সিলেবাস শেষ করতে অতিরিক্ত ক্লাস ও পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়। ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাসে উপস্থিতি নিশ্চিত করতে অভিভাবকদের সাথে যোগাযোগ ও অভিভাবক সমাবেশ করা হয়। আইন শৃঙ্খলা, পরিবেশ ও নিয়মানুবর্তিতার জন্য কলেজ ইউনিফর্ম ও আইডি কার্ড বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। নাটোর পৌর এলাকার একমাত্র বেসরকারী সাধারণ কলেজ হিসাবে জন্মলাভকৃত   এ বিদ্যানিকেতনটি উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের  ও ডিগ্রী (পাস) স্তরের শিক্ষার্থীদের যথার্থ শিক্ষাদানে  এবং দেশ ও জাতি গঠনে অপরিসীম অবদান রাখছে। .